সৈকতে যেন আত্মাহুতি দিল ৭৫ তিমি

আন্তর্জাতিক ডেক্স : অস্ট্রেলিয়ার একটি সমুদ্র সৈকতে আটকা পড়েছে ১৫০টি তিমি। এর মধ্যে মারা গেছে ৭৫টি তিমি। এতগুলো তিমির এভাবে সৈকতে (অল্প পানি) চলে আসাটা এক প্রকার আত্মাহুতি। কথিত আছে, নিজের প্রাণনাশের জন্যই নাকি তিমিরা সৈকতে উঠে আসে। মারা যাওয়া এসব তিমিকে ছোট প্রজাতির বলে সনাক্ত করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

শুক্রবার ভোরে অস্ট্রেলিয়ার পার্থ শহরের ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণে হেমেলিন উপসাগরের সৈকতে তিমিগুলোকে শনাক্ত করেন স্থানীয় এক জেলে। বিবিসি বলছে, আটকে পড়া তিমিগুলোর প্রায় অর্ধেকের বেশি মৃত, নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলের কর্তৃপক্ষ। এখনো যেসব তিমি জীবিত আছে তাদের বাঁচানোর চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে দেশটির প্রাণিবিভাগ।

জানা গেছে, তিমিগুলো উদ্ধার করতে অন্তত কয়েক ডজন উদ্ধারকারী সমুদ্রতীরে অবস্থান করছেন। অস্ট্রেলিয়ান সম্প্রচার করপোরেশন বলছে, জনগণকে সতর্ক করে দিয়ে নির্দিষ্ট ওই এলাকা থেকে দূরে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার জীববৈচিত্র্য বিভাগের কর্মকর্তা জেরেমি চিক বলেন, ‘তিমিগুলো সাগরের দিকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। তবে ঝড়ো আবহাওয়া এবং আর্দ্র আবহাওয়ায় প্রাণীগুলোর জীবনীশক্তির ওপর প্রভাব ফেলছে।’’

এদিকে তিমিদের দেখে হাঙ্গরও তীরে চলে আসছে। দেশটির ফিশারিজ বিভাগ বলছে, মৃত এবং মৃতপ্রায় তিমিগুলো হাঙ্গরের জন্য আকর্ষক হিসেবে কাজ করছে। ফলে হাঙরগুলো উপকূলের কাছাকাছি চলে আসছে।

এতগুলো তিমি হঠাৎ কী কারণে সমুদ্রতীরে এসে জড়ো হলো- বিশেষজ্ঞরা এ বিষয়ে এখনো সুনির্দিষ্টভাবে কিছু বলতে পারেননি। সর্বশেষ প্রায় ২২ বছর আগে ১৯৯৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলের সৈকতে প্রায় ৩২০টি তিমি আটকা পড়েছিল। তখনও বেশকিছু তিমি মারা যায়।

Leave a Comment